XI admission – ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি শুরু।

XI admission – ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি শুরু।

XI Admission
XI Admission start

সংজ্ঞা ? এই কিমালায়
১.১  বোর্ড বলতে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বাের্ড বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বাের্ড বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বাের্ড বুঝাবে।

১.২ কলেজ/সমমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বলতে দেশের কোন বাের্ড হতে উচ্চ মাধ্যমিক/ সমমানের স্তরে পাঠদানের জন্য বা স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বুকাবে।

১.৩ “নির্ধারিত ফরম” বলতে ভর্তির জন্য নির্ধারিত অনলাইন আবেদন ফরম বুঝাবে।

১.৪ শিক্ষার্থী/প্রার্থী বলতে ছাত্র ও ছাত্রী উভয়কে বুঝাবে।

ভর্তির যােগ্যতা ও গ্রুপ নির্বাচনঃ
২.১। ২০১৭, ২০১৮, ২০১৯ সালে দেশের যে কোন শিক্ষা বোের্ড এবং বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালে এস,এস,সি, বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীগণ ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে নীতিমালার অন্যান্য বিধানাবলি সাপেক্ষে কোন কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির যােগ্য বিবেচিত হবে। উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়
থেকে ভর্তির ক্ষেত্রে বয়স হবে সর্বোচ্চ ২২ বছর।

2.2। বিদেশি কোন বাের্ভ বা অনুরূপ কোন প্রতিষ্ঠান হতে সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীগণ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বাের্ড, ঢাকা কর্তৃক তার সনদের মান নির্ধারণের পর দফা (২-১) এর অধীনে ভর্তির যােগ্য বিবেচিত হবে।

২.৩। ভর্তির জন্য একজন প্রার্থী নিম্নরূপ গ্রুপ নির্বাচন করতে পারবেঃ
২.৩.১। বিজ্ঞান গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ এর যে কোন একটি।

২.৩.২। মানবিক গুরুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ এর যে কোন একটি।

২.৩.৩। ব্যবসায় রুশ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক এপ এর যে কোন একটি।

২.৩.৪। যে কোন বিকাশ (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও সংগীত গ্রুপের যে কোনো একটি।

প্রার্থী নির্বাচনে অনুসরণীয় পদ্ধতি:
3.1 জর্তির জন্য কোন বাছাই বা ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না। কেবল শিক্ষার্থীর এস,এস,সি, বা সমমান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে ভর্তি করা হবে।

3.2. বিভাগীয় এবং জেলা সদরের কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে ভর্তির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের ১০০% আসন সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে যা মেধার ভিত্তিতে নির্বাচন করা হবে। মেধার ভিত্তিতে ভর্তির পরে যদি বিশেষন আবেদনকারী থাকে তাহলে মোট আসনের অতিরিক্ত ৫% মুক্তিযােদ্ধার সন্তান/সন্তানের সন্তানদের জন্য, ৩% বিভাগীয় এবং জেলা সদরের বাইরের শিক্ষার্থীদের জন্য, ২% শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

XI admission:

এর অধঃস্তন দপ্তরসমূহ এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মকর্তা, শিক্ষক, কর্মচারি ও স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির সদস্যদের সন্তানদের জন্য, ০.৫% বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএস.পি.) এর জন্য এবং ০.৫% প্রবাসীদের সন্তানদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে।

উপর্ভুক্ত কোটায় যদি প্রার্থী না পাওয়া যায় তবে এ আসন কার্যকরী থাকবে না। মুক্তিযােদ্ধার সন্তান/সন্তানের সন্তানদের সনাক্তকরণের জন্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে প্রদত্ত সনদপত্র দাখিল করতে হবে। শিক্ষা, বিকেএসপি, এবং প্রবাসীদের সন্তান কোটার ক্ষেত্রেও ভর্তির সময় উপযুক্ত প্রমাণপত্র দাখিল করতে হবে। যে সকল শিক্ষার্থী প্রতিবন্ধী হিসেবে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে কেবল মাত্র তারাই সংশ্লিষ্ট বাের্কে ম্যানুয়ালি র্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

৩.৩.১ সমান জি,পি,এ, প্রাপ্তদের ক্ষেত্রে সর্বমােট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে। বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বাের্ড, কারিগরি শিক্ষা বাের্ফ ও বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এর ক্ষেত্রে গ্রেভ পয়েন্ট ও প্রাপ্ত নম্বর সমতুল্য করে হিসাব করতে হবে। তাছাড়া বিভিন্ন সালের গ্রেড পয়েন্ট ও প্রাপ্ত নম্বর সমতুল্য করে হিসাব করতে হবে।

৩.৩.২ বিজ্ঞান গ্রুপে ভর্তির ক্ষেত্রে সমান মােট নম্বর প্রাপ্তদের মেধাক্রম নির্ধারণের ক্ষেত্রে সাধারণ গণিত ও উচ্চতর গণিত/জীববিজ্ঞানে প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনায়. আনতে হবে।

৩.৩.৩। দফা ৩.৩.২ এর বিধান সরেও ধনি প্রার্থী বাছাইক টা জটিলতা নিরসন না হয়, তবে পর্যায়ক্রমে ইংরেজি, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়নে প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনায় আনতে হবে।

৩.৩.৫। মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ এর ক্ষেত্রে সমান মােট নম্বর বিষয়টি নিষ্পত্তির লক্ষ্যে পর্যায়ক্রমে ইংরেজি, গণিত ও বাংলা বিষয়ে প্রশ্ন নম্বর বিবেচনায় আনতে হবে।

৩,৩.৫। এক শেৱ এখী জন এলে ভর্তির ক্ষেত্রে জি,পি,এ একই হলে সর্বমােট প্রাপ্ত সম্বন্ধে ভিওিতে মেধাক্রম
নির্ধারণ করা হবে। এক্ষেত্রে প্রার্থী বাছাই করে মত জটিলতা নিরসন না হলে পর্যায়ক্রমে ইংরেজি, গণিত ও বাংলা বিষয়ে রাত নম্বর বিবেচনায় আনতে হবে।
এ নীতিমালায় যা কিছুই থাকুক না কেন ল এত কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে নিজস্ব প্রতিষ্ঠান হতে উত্তীর্ণ।

XI Admission :

Download PDF File, For Admission Notice.

শিক্ষার্থীগণ প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত যােগ্যতা সাপেক্ষে স্ব স্ব বিভাগে (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ভর্তির সুযােগ পাবে। প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব শিক্ষার্থীদের স্ব স্ব বিভাগে ভর্তি নিশ্চিত করেই কেবল অবশি শুন্য আসনে প্রযােজ্য ক্ষেত্রে ধারা ৩.০ এর উপবিধান (৩২) ও (৩৩) অনুসরণ করে শিক্ষার্থী ভর্তি করানাে যাবে। তবে এ সকল প্রতিষ্ঠানের সকল প্রতিই অনলাইনে হবে।

৩৫। কোন কলেজসমমানের প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য সংহি লেজ কর্তৃপক্ষ ননতম যােগ্যতা নির্ধারণ করতে পারবে।

৩৬। কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানকে তাদের ভর্তি সংক্রান্ত সকল তথ্য ওয়েবসাইট এবং নােটিশ বোের্ড প্রকাশ করতে হবে।

৩৭। সকল কলেজ উচ্চমাধ্যমিক/সমমানের প্রতিষ্ঠান স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে মন্ত্রণালয় তথা শিক্ষা বাের্ড কর্তৃক ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকা ও সময় অনুযায়ী শিক্ষার্থী ভর্তি কাবে। কোন প্রতিষ্ঠান মন্ত্রণালয় ও বাের্ড নির্ধারিত তারিখের বাইরে নিজ ইচ্ছামাফিক ভর্তি কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে না।

অনলাইনে ভর্তিঃ
৪১। শিক্ষা বাের্ড কর্তৃক অনুমােদিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য অনলাইনে অথবা টেলিটক মােবাইল এস,এম,এস, এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। অনলাইনে আবেদনের জন্য ওয়েবসাইট এর ঠিকানাঃ www.xiclassadmission.gov.bd

৪২। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০/- (একশত পঞ্চাশ) টাকা আবেদন ফি জমা সাপেক্ষে সর্বনিম্ন ৫(পাঁচ)টি এবং সর্বোচ্চ ১০(দশ) টি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য পছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করতে পারবে। এস,এম,এস, এর মাধ্যমে প্রতি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য ১২০/- (একশত বিশ) টাকা আবেদন ফি প্রদান সাপেক্ষে একাধিক কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে পর পর পছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করতে পারবে। অনলাইন এবং এস,এম,এস, উভয় পদ্ধতিতে সর্বোচ্চ ১০(দশ) টি লেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলাে কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে শিক্ষার্থীর মেধা, কোটা (প্রযােজ্য ক্ষেত্রে) ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি মাত্র কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করা হবে।
XI admission
বিজ্ঞপ্তি ও ভর্তি ফ্রিঃ
৫১। অনুচ্ছেদ ৮.২ অনুসরণপূর্বক কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠান বাের্ড কর্তৃক নির্ধারিত আসন সংখ্যা (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা , শিক্ষক, পুরুষ/মহিলা/সহশিক্ষা, অর্শন) এবং বাের্ড কর্তৃক নির্ধারিত ভর্তি ফিসহ অনুমােদিত অন্যান্য সকল ফি, ভর্তির ন্যূনতম যােগ্যতা ইত্যাদি তথ্য ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বাের্ড এবং ওয়েবসাইটে প্রকাশ করবে।

৫২। বাের্ডের পূর্বানুমতি ব্যতীত নির্ধারিত আসন সংখ্যার অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে না। বাের্জসমূহ স্ব অধিক্ষেত্রে অবস্থিত কলেজসমমানের প্রতিষ্ঠানে এই বিধানের ব্যত্যয় রােধে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

৫৩। অনলাইনে বাের্ড থেকে প্রায় ভর্তিযােগ্য প্রার্থীদের মেধাক্রম তালিকা কলেজের নােটিশ বাের্ড ও সংশ্লিষ্ট কলেজ/ সমমানের প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে প্রকাশের ব্যবস্থা করবে।

৫৪। ভর্তির সময় প্রার্থীকে মূল একাডেমিক ট্রান্সক্রিশানৱপত্র এবং যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে প্রার্থী এস,এস,সি / সমমানের পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়েছিল সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তৃক ইস্যুকৃত প্রশংসাপত্র দাখিল করতে হবে৷

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *